প্রবেশিকা

ক্ষুদ্রতম কথাটিও, প্রিয়,
বৃহতের কাছে পৌঁছে দিও ...
নতুবা কেমন তুমি কবি?
মাঝে মাঝে শুধু চিঠি দিয়ো...
কতো পথ পেরোলে অথবা
কত পথ বাকি আছে আজো –
- এইটুকু খবর জানিও...
আমি সেই চিঠিতেই খুশি...
আমার কথাটি তুমি, প্রিয়,
বিরাটের পায়ে রেখে যেয়ো।
**************************************************** **

Sunday, June 28, 2015

"দুপুরবেলা সবার খাওয়া হলে..." ও অন্যান্য "ড্রইং"


"দুপুরবেলা সবার খাওয়া হলে..." ও অন্যান্য "ড্রইং"


"দুপুরবেলা সবার খাওয়া হলে..."

"ঘোমটা পরা ওই ছায়া..."

"দূরে কোথায়..."

"Tiger!Tiger!!..."

Friday, June 12, 2015

“অরণ্যের অধিকার”





“অরণ্যের অধিকার” 
মহাশ্বেতা দেবীকে –


অরণ্যের অভিশাপে জেনো
একদিন পুড়েযাবে সমুদয় “নেচার টুরিস্ট” –
“জঙ্গল মহল” আর সুপ্রসিদ্ধ “হোম্‌” ও “লজ্‌”গুলি
পুড়েযাবে অরণ্যের লুকানো আগুনে –
হায়নার মতো হিংস্র “কার্‌”গুলি, “ওম্‌নিবাস্‌”গুলি
দাউ দাউ জ্বলে উঠবে পথিমধ্যে –
লোকে জানবে “আকস্মিক দুর্ঘটনাহেতু”–
আসলে সকলি ঘটবে
অরণ্যের তীব্র অভিশাপে...

এইসব কথাগুলি আজ
অরণ্য পুড়িয়ে করা “অরণ্যের” মতন বাগানে
একলা হাঁটতে হাঁটতে জেনেছি বাতাসে লেখা
পাতাদের মৌন বিজ্ঞাপনে...