প্রবেশিকা

ক্ষুদ্রতম কথাটিও, প্রিয়,
বৃহতের কাছে পৌঁছে দিও ...
নতুবা কেমন তুমি কবি?
মাঝে মাঝে শুধু চিঠি দিয়ো...
কতো পথ পেরোলে অথবা
কত পথ বাকি আছে আজো –
- এইটুকু খবর জানিও...
আমি সেই চিঠিতেই খুশি...
আমার কথাটি তুমি, প্রিয়,
বিরাটের পায়ে রেখে যেয়ো।
**************************************************** **

Monday, March 24, 2014

অনেক অক্ষরবৃত্ত, মাত্রাবৃত্ত পার হয়ে এসে...







অনেক অক্ষরবৃত্ত, মাত্রাবৃত্ত পার হয়ে এসে...

অনেক অক্ষরবৃত্ত, মাত্রাবৃত্ত পার হয়ে এসে
জানা যায় - ভাষা নয়, ভাষাটির অপব্যবহারে
অতলান্ত কলুষিত করেছি নিজেকে।

দিগন্ত পেরিয়ে আরো কিছুদূর হেঁটে যাওয়া ছাড়া
আমার নিজস্ব কোনো স্বপ্ন কিংবা
স্বরলিপি ছিলনা কখনো।
তোমাদের স্বপ্ন, সাধ, ভালবাসাগুলি
নীরবে কুড়িয়ে এনে গুহায়, পাথরে
লিখে রেখে যেতে গিয়ে দেখি
কেবল আঙ্গিকই শুধু পারঙ্গম হতে পারে
সমূলে অর্জন করতে মৃত্যু, অমরতা।

... আর সব ধূলি হয়
অগ্নুৎপাতে, ভূকম্পনে, রণে...

জলরঙ্গের বসন্ত

জলরঙ্গের বসন্ত



১।

"বেণুবন মর্মরে দখিন বাতাসে,
প্রজাপতি দোলে ঘাসে ঘাসে।
মউমাছি ফিরে যাচি ফুলের দখিনা,
পাখায় বাজায় তার ভিখারির বীণা,
মাধবীবিতানে বায়ুগন্ধে বিভোল।
দ্বার খোল্‌, দ্বার খোল্‌॥"



২।


দখিন-হাওয়া জাগো জাগো,   জাগাও আমার সুপ্ত এ প্রাণ।
  
আমি বেণু, আমার শাখায়  নীরব যে হায় কত-না গান।  জাগো জাগো॥
      
পথের ধারে আমার কারা    ওগো পথিক বাঁধন-হারা,
  
নৃত্য তোমার চিত্তে আমার   মুক্তি-দোলা করে যে দান।  জাগো জাগো॥








৩। "পথ দিয়ে কে যায় গো চলে 
ডাক দিয়ে সে যায় । 
আমার ঘরে থাকাই দায় ।"